এশিয়ান ট্যুর প্রফেশনাল গলফের লোগো উন্মোচন

ঢাকা সেনানিবাসস্থ কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবের ব্যাংকুয়েট হলে শনিবার ‘এশিয়ান ট্যুর প্রফেশনাল গলফ টুর্নামেন্ট উপলক্ষে টুর্নামেন্টের লোগো উন্মোচন করা হয়। আগামী ৯ থেকে ১২ মে কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবে চতুর্থবারের মতো আন্তর্জাতিক পেশাদার গলফ টুর্নামেন্ট ‘এবি ব্যাংক বাংলাদেশ ওপেন ২০১৮’ অনুষ্ঠিত হবে। লোগো উন্মোচনের পর মিডিয়া ব্রিফ ও ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। টুর্নামেন্টের সাংগঠনিক কমিটির চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ গলফ ফেডারেশনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মেজর জেনারেল এ কে এম আব্দুল্লাহিল বাকি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে লোগো উন্মোচন করেন। পরে গণমাধ্যমকে টুর্নামেন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হয়। ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন ‘এবি ব্যাংক বাংলাদেশ ওপেনের সাংগঠনিক কমিটির সদস্য ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ফখরুল আহসান ও টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবিদুর রেজা খান (অবঃ)। পরে টুর্নামেন্ট উপলক্ষে একটি ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ গলফ ফেডারেশনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং এবি ব্যাংক লিমিটেডের পৃষ্ঠপোষকতায় কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবে চতুর্থবারের মতো আন্তর্জাতিক এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্বের প্রায় ২৫টি দেশের (আমেরিকা, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া ও এশিয়ার) পেশাদার গলফার, অফিসিয়াল, রেফারি, সংগঠক, টেলিভিশন সম্প্রচারের টেকনিশিয়ান, গণমাধ্যম সংশ্লিষ্টসহ প্রায় দু’শতাধিক বিদেশী ব্যক্তি বাংলাদেশে আসবেন। উল্লেখিত ব্যক্তিবর্গ প্রায় ১০ দিন বাংলাদেশে অবস্থান করবেন। ব্রিফিংয়ে বলা হয়, এশিয়ান ট্যুর ইভেন্টে অংশগ্রহণ করতে হলে আমাদের গলফারদের আন্তর্জাতিক কোয়ালিফাইং টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে যোগ্যতা অর্জন করতে হয়। এটা শুধু ব্যয়বহুলই নয় বরং সময়সাপেক্ষও। কিন্ত বাংলাদেশ এই টুর্নামেন্টের আয়োজক হওয়ার সুবাদে ৩৫ জন উদীয়মান পেশাদার গলফার ও ৬ জন এ্যামেচার গলফার সরাসরি মূল পর্বে খেলায় অংশগ্রহণ করার সুযোগ পাবেন। এটা আমাদের জন্য অন্যতম একটি বড় অর্জন। বাংলাদেশে এশিয়ান ট্যুর আয়োজনের প্রেক্ষিতে এ খেলার প্রসার দেশে ছড়িয়ে পড়বে। এশিয়ান ট্যুর বর্তমান গলফ বিশ্বে গলফের তৃতীয় বৃহত্তম ট্যুর। আন্তর্জাতিক এই টুর্নামেন্টে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ অংশগ্রহণ করছে। এশিয়ার খ্যাতিমান পেশাদার গলফারগণ অংশগ্রহণ করে থাকেন। এই আয়োজন ক্রীড়াজগতে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নতুন এক উচ্চতায় নিয়ে যাবে। পাশাপাশি এই ইভেন্ট দেশকে এশিয়ার অন্যতম গলফিং গন্তব্যে পরিণত করবে। এতে ক্রীড়া, পর্যটন ও ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগের বিপুল সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচিত হবে।

এশিয়ান ট্যুর প্রতিষ্ঠা লাভের পর ১৯৯৫ সালে প্রথম এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। এশিয়া (জাপান ব্যতীত) ও ওশেনিয়া অঞ্চলের বিভিন্ন দেশে এশিয়ান ট্যুর কর্তৃক আয়োজিত এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এশিয়ার সর্ববৃহৎ এ টুর্নামেন্টে এশিয়া, ইউরোপ, আমেরিকা এবং আফ্রিকার শ্রেষ্ঠ পেশাদার গলফারগণ অংশগ্রহণ করবেন। তিন লাখ মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ প্রাইজমানির এই টুর্নামেন্টের নামকরণ করা হয়েছে ‘এবি ব্যাংক বাংলাদেশ ওপেন ২০১৮’।

Back to top